অপরাধরাজধানী

র‌্যাবের অভিযানে অপহৃত তরুনী উদ্ধার, অপহরনকারী আটক

আব্দুল্লাহ আল মামুন:নারায়নগঞ্জের ফতুল্লা থেকে কুলসুম (ছদ্মনাম) নামে এক তরুনী গত ১০ অক্টোবর সন্ধ্যা অনুমান ৭’টার দিকে নিখোঁজ হলে ১১’অক্টোবর সন্ধ্যায় রাজধানীর ডেমরা থানাধীন সুলতানা কামাল ব্রিজের ওপর থেকে অপহৃত কুলসুমকে (ছদ্মনাম) উদ্ধার করে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-১০।
ঘটনার বিবরনে জানা যায়, কুলসুম নিখোঁজ হওয়ার পর বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করে তাকে না পেয়ে ভিকটিমের স্বামী নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানা এলাকার বাসিন্দা মকবুল হোসেনের ছেলে মাসুদ রানা ১১’অক্টোবর র‌্যাব-১০ এর স্থানীয় কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অভিযোগ দাখিল করেন। এ সময় র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক মো. কাইয়ুম্জ্জুামান খান বিপিএম. পিপিএম.কে বিষয়টি অবহিত করা হলে তিনি এ বিষয়ে অধীনস্থদের দ্রæত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নির্র্দেশ প্রদান করেন।
অতঃপর র‌্যাবের নিজস্ব অনুসন্ধান ও গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১১’অক্টোবর সন্ধ্যায় সিপিএসসি, র‌্যাব-১০ এর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার সি. সহকারী পরিচালক আলী রেজা রাব্বী এবং স্কোয়াড কমান্ডার এএসপি. মো. আসাদুজ্জামানের নেতৃত্বে রাজধানীর ডেমরা থানা এলাকায় এক বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ডেমরাস্থ সুলতানা কামাল ব্রিজের ওপর থেকে অপহৃত তরুনী কুলসুমকে উদ্ধার করা হয়। এবং আমিনুল ইসলাম মানুন ভূইয়া (৪০) নামের অপহরনকারীচক্রের এক সদস্যকেও গ্রেফতার করা হয় বলে র‌্যাব সূত্রে জানা যায়।
আসামীর বরাত দিয় র‌্যাব জানায়, আমিনুল ইসলাম @ মামুন ভূইয়ার পিতার নাম- মৃত: আব্দুর রউফ ভূইয়া, থানা-বুড়িচং, জেলা- কুমিল্লা। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, আমিনুল ইসলাম কুলসুমকে (ছদ্মনাম) কতিপয় সহযোগীদের সহায়তায় বল প্রয়োগ পূর্বক অপহরণ করে তার নিজ বাসায় আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ করে। আটককৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানায় ভিকটিম নিজে বাদী হয়ে একটি অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা রুজু করেছেন বলে র‌্যাব জানায়।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button